Home > বন্দর নগরী > ঋণের কিস্তি জোগাড়ের চেষ্টায় শিশু অপহরণ

ঋণের কিস্তি জোগাড়ের চেষ্টায় শিশু অপহরণ

শিশু অপহরণের পর মুক্তিপণ আদায়ের চেষ্টার ঘটনায় পুলিশ এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে, সম্পর্কে যিনি শিশুটির ফুপা।

পুলিশ বলছে, গ্রেপ্তার রফিকুল ইসলাম (২৬) প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানিয়েছেন, বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান থেকে নেওয়া ঋণের কিস্তি পরিশোধ করতে না পেরে মুক্তিপণ আদায়ের জন্য তিনি শিশুটিকে অপরহরণ করেছিলেন।

নগর গোয়েন্দা পুলিশ ও হালিশহর থানা পুলিশের যৌথ অভিযানে রোববার দুপুরে নগরীর চান্দগাঁও থানার বহদ্দারহাট এলাকা থেকে রফিকুলকে গ্রেপ্তারের পর তিন বছর বয়সী অপহৃত শিশুকেও উদ্ধার করা হয়।

গ্রেপ্তার রফিকুল চন্দনাইশ উপজেলার বৈলতলী গ্রামের নুরুল আলমের ছেলে।

উদ্ধার করা শিশু জুবায়েদ হালিশহর ছোট পুল এলাকার গুলবাগ ওয়ালটন গলির বাসিন্দা মো. নাছিরের ছেলে। নাছির ওই এলাকায় একটি কমিউনিটি সেন্টারে বয়ের কাজ করেন।

নাছির জানান, রফিকুল তাদের বাসায় থেকে রিকশা চালান। শনিবার দুপুরে সে সবার অগোচরে জুবায়েদকে ঘুম থেকে তুলে কোলে করে নিয়ে যায়।

“কোথাও খুঁজে না পেয়ে সন্ধ্যায় আমরা মাইকিং করি, ওই সময় রফিকুলও আমাদের সাথে ছিল।”

সন্ধ্যা ৭টার দিকে অপরিচিত একটি নম্বর থেকে ফোন করে ১০ হাজার টাকা দাবি করা হয় জানিয়ে নাছির বলেন, “রাতে আমরা জুবায়েদের সন্ধানে থানায় অভিযোগ করে বাসায় আসার পর থেকে রফিকুলকে খুঁজে পাচ্ছিলাম না।”

নগর গোয়েন্দা পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার পলাশ কান্তি নাথ জানান, রাতে শিশুটির বাবা হালিশহর থানায় অভিযোগ করলে গোয়েন্দা পুলিশ ও হালিশহর থানা পুলিশ যৌথ অভিযানে নামে।

“চন্দনাইশ উপজেলা ও নগরীর চান্দগাঁও ও পাঁচলাইশ এলাকায় শনিবার রাত থেকে রোববার দুপুর পর্যন্ত অভিযান চালিয়ে বহদ্দারহাট এলাকা থেকে রফিকুলকে গ্রেপ্তার করা হয়। পরে রফিকুলের স্বীকারোক্তি অনুযায়ী পাঁচলাইশ থানার বদি আলম গলিতে তার খালার বাসা থেকে শিশুটিকে উদ্ধার করা হয়।”

সিটিজিনিউজ২৪ডটকম/এডিটর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *